1. info@dailyajkerbangla.com : Developer :
  2. hairajmaji28@gmail.com : Md Hairaj Maji : Md Hairaj Maji
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মনগড়া নতুন সদস্য বানিয়ে বরগুনা রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের পাতানো নির্বাচনের পায়তারা ঘর ভাংচুর করে জমি দখল চেষ্টার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন জমি দখলের প্রতিবাদ করায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের দুর্দিনের পরীক্ষিত নেতা গোলাম সরোয়ার ফোরকানকে সভাপতি চায় তৃণমূল! তালতলীতে দোকান ভাঙচুর করে মালামাল লুট করার অভিযোগ আজ শাফি হোসেন চিশতী ইউশার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী আমতলীর রাজনীতি এখন কোন পথে? আমতলীতে স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতিকে কুপিয়ে আহত করেছে ছাত্রলীগ। তালতলীতে ভালো খাবারের অঙ্গীকার নিয়ে আলিফ চায়নিজ এন্ড রেস্তোরাঁর শুভ উদ্বোধন। আমতলী পৌর শহরে টোল আদায় স্থগিত করেছে হাইকোট

তালতলীতে দোকান ভাঙচুর করে মালামাল লুট করার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৪ বার পড়া হয়েছে

 

তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

বরগুনার তালতলীতে একটি মুদি মনোহরির দোকান ভাঙচুর করে কয়েক লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেছেন কবির হাওলাদার নামের এক ব্যবসায়ী।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের গেন্ডমারা বগীর রাস্তার মাথায় এ ঘটনা ঘটে।লুটপাটের সময় সন্ত্রাসীরা দোকানে থাকা নগদ ৭৫ হাজার টাকা ও কয়েক লক্ষ টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে গেছে বলে জানান।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, ওই বাজারের প্রায় পাঁচ বছরে ধরে মুদি ব্যবসা করে আসছিলেন কবির হাওলাদার। প্রতিদিনের মতো সকালে আটটার দিকে তার ছেলে হৃদয় দোকান খুলে দোকানে বসেন। এসময় স্থানীয় মালেক হাওলাদার, মামুন, বাবুল আকন, আবু সালেহ, সোহাগ, সত্তার হাওলাদার ও শারমিনসহ ২০/৩০ জন লোক এসে কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই দোকানের ভিতরে ঢুকে তাদের মারধর ও দোকানের মালামাল ভাঙচুর করে ক্যাশে রাখা ৭৫ হাজার টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। এ সময় দোকান মালিক তাদেরকে বাধা দিলে তাকেও বেধড়ক মারধর করা হয়।

মুদি ব্যবসায়ী কবির হাওলাদার বলেন, আমি পাঁচ বছর ধরে এই দোকানে ভাড়া থাকি। এই ঘরের মালিক আমির জোমাদ্দারের সাথে মালেক হাওলাদারের জমিজমা নিয়ে ঝামেলা থাকতে পারে। আমি ভাড়াটিয়া আমার সাথে কারো সাথে ঝামেলা নেই। মালেক হাওলাদারসহ লোকজন এসে বিনা কারণে সন্ত্রাসী স্টাইলে আমার দোকানে দিনে দুপুরে ভাঙচুর করে নগদ টাকা ও মালামাল লুটপাট করে নিয়ে গেছে।

অভিযুক্ত মালেক হাওলাদার এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মোবাইল রিসিভ করে কোন কথা না বলে কেটে দেন। পরে একাধিক বার কল দিলেও তার মোবাইল টি বন্ধ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে তালতলী থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেইনি।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
All Rights Reserved © 2022 Daily Ajker Bangla
Developed By :: Sky Host BD